বুধবার, জুন ২৯, ২০২২

মানব স্বাস্থ্যের ‘সবচেয়ে বড়’ হুমকির সমাধান করলো সুপার কম্পিউটার

মানব স্বাস্থ্যের জন্য বর্তমানে সবচেয়ে বড় হুমকি অ্যান্টিবায়োটিক রেসিস্টেন্স বা শরীর অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী হয়ে ওঠা।

বিজ্ঞানীদের অনেক বছরের চেষ্টার পর অবশেষে এই সমস্যার সমাধান করেছে সুপার কম্পিউটার।

জার্মান বার্তা সংস্থা ডিপিএ ইন্টারন্যাশনালের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পোর্টসমাউথ ইউনিভার্সিটির ডা. গেরহার্ড কোয়েনিগের নেতৃত্বে গবেষকদের একটি আন্তর্জাতিক দল পিএনএএস জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় এ কথা জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতি বছর প্রায় ৭ লাখ মানুষ অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী ব্যাকটেরিয়ার কারণে মারা যায় বলে বিজ্ঞানীদের অনুমান এবং আগামী বছরগুলোতে এই সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ফলে কার্যকর অ্যান্টিবায়োটিক ছাড়া মানুষের গড় আয়ু ২০ বছর কমে যাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে যেকোনো রোগ পরিবর্তিত এবং বিকশিত হচ্ছে, তাই আগের চেয়েও দ্রুত রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারবে এমন নতুন অ্যান্টিবায়োটিক বিকাশের প্রয়োজন।

গবেষক দল পরিবর্তনশীল রোগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিদ্যমান অ্যান্টিবায়োটিকগুলোকে পুনরায় ডিজাইন করতে সুপার কম্পিউটার ব্যবহার করছেন বলে জানিয়েছেন।

কম্পিউটেশনাল কেমিস্ট ডক্টর কোয়েনিগ বলেছেন, “অ্যান্টিবায়োটিক হলো আধুনিক ওষুধের অন্যতম স্তম্ভ এবং অ্যান্টিবায়োটিক রেসিস্টেন্স মানব স্বাস্থ্যের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকিগুলোর মধ্যে একটি তাই ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করার নতুন উপায়ের বিকাশ করা প্রয়োজন৷”

তিনি আরও বলেন, “একটি নতুন অ্যান্টিবায়োটিক আবিষ্কৃত হলে ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের নতুন একটি সম্ভাবনা তৈরি হয়।

এটি অত্যন্ত কঠিন এবং সাম্প্রতিক সময়ে অ্যান্টিবায়োটিকের নতুন শ্রেণি খুব কমই তৈরি করা হয়েছে।”

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তালিকাভুক্ত দুইটি প্রয়োজনীয় ওষুধ এরিথ্রোমাইসিন এবং ক্ল্যারিমাইসি’র তুলনায় নতুন আবিষ্কৃত ওষুধটি ৫৬ গুণ বেশি কার্যকরী বলে গবেষক দলটি জানিয়েছে।

তবে ওষুধটি এখনও মানবদেহে পরীক্ষা করা হয়নি।

ডা. কোয়েনিগ বলেন, যতক্ষণ না ব্যাকটেরিয়া বর্তমান অ্যান্টিবায়োটিকের বিরুদ্ধে নিজের বিকাশ ঘটাচ্ছে এবং প্রতিরোধী হয়ে উঠছে ততক্ষণ আমাদের ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধী অ্যান্টিবায়োটিক সম্পর্কিত পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কম্পিউটারগুলো প্রতি বছর আরও দ্রুততর হয়ে উঠছে।

কম্পিউটার যদি দাবাতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নকে পরাজিত করতে পারে, তাহলে কেন তারা ব্যাকটেরিয়াকে পরাস্ত করতে পারবে না?

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর