শনিবার, জানুয়ারি ২২, ২০২২

ধর্ষকদের সঙ্গে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর ‘দীর্ঘদিনের পরিচয়’!

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান বলেছেন, কক্সবাজারে স্বামী-সন্তানকে জিম্মি করে সংঘবদ্ধভাবে গৃহবধূকে ধর্ষণের মূলহোতা আশিক ও বাবুর সঙ্গে দীর্ঘদিনের পরিচয় ছিল ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর।

পাশাপাশি এই গৃহবধূ দীর্ঘ তিন মাস ধরে কক্সবাজারের বিভিন্ন হোটেল ও কটেজে অবস্থান করে আসছেন।

এর মধ্যে শহরের লাইট হাউজ এলাকার দারুল আল এহসান কটেজ, আরমান কটেজ ও সী ল্যান্ডসহ ৪টি হোটেল ও কটেজের নাম স্বামী ও স্ত্রীকে পৃথক জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া গেছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে সাংবাদিকেদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, অপকর্মকারী চক্রের সঙ্গে তাদের এমন কোনো বিষয় থাকতে পারে যা পর্যটনকে কেন্দ্র করে এবং পর্যটক সেজে ব্যাপকভাবে এ ঘটনাকে রূপ দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি এ ঘটনার মূলহোতা নানা অপকর্মের গডফাদার আশিকের মোটরসাইকেলের পেছনে করে এই নারী হোটেলে গেছেন।

তাকে অটোরিকশা বা সিএনজি করে তুলে নেওয়ার কথা সত্য নয়।

ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান বলেন, ঘটনার পরপরই ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে ছায়াতদন্ত চলছে।

পাশাপাশি মামলা রেকর্ডের পর তদন্তভার যখন ট্যুরিস্ট পুলিশ পায় তখন থেকেই এ ঘটনা নিয়ে কয়েকটি টিম কাজ করছে।

সুতরাং পরিষ্কারভাবে বলা যায়- এ ঘটনার আগে-পিছে কিছুই অপরিষ্কার থাকবে না। দ্রুত সময়ের মধ্যেই আসল রহস্য বের হয়ে আসবে।

অন্যদিকে মামলা তদন্তে মনিটরিংয়ে থাকা কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ঘটনা যাই হোক না কেন অপরাধীদের ধরার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আশা করা যাচ্ছে খুব দ্রুত সময়ে অপরাধী আইনের আওতায় আসবে। পাশাপাশি আসল ঘটনার সূত্রপাত থেকে শুরু করে শেষ পর্যন্ত পরিষ্কার হবে।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মতে, ঢাকার যাত্রাবাড়ীর জুরাইন এলাকায় থাকার কথা বললেও ওই দম্পতি তাদের সন্তানসহ তিন মাস ধরে নিজেদের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে কক্সবাজারে আছেন।

তাছাড়া স্বামী, স্ত্রী ও তাদের স্বজনদের মধ্যে অনেক তথ্যগত গরমিল রয়েছে। যে কারণে স্বামী, স্ত্রী ও তাদের স্বজনদের পর্যন্ত পিসিবিআর যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

তাছাড়া ইতোমধ্যে তাদের এবং অপরাধীদের মোবাইলের সিডিএমএস চাওয়া হয়েছে। সবকিছু হাতে আসলে ঘটনার অনেক ক্লু বের হয়ে যাবে।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর