বুধবার, জুন ২৯, ২০২২

চশমা খালে নিখোঁজ শিশু কামালের মরদেহ মিললো মির্জা খালে

চট্টগ্রামের মুরাদপুরের চশমা খালে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর শিশু কামালের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে ষোলশহর এলাকার মির্জা খাল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার আরাফাতুল ইসলাম জানিয়েছেন, একটি মরদেহ উদ্ধারের খবর পেয়ে তারা নিখোঁজ কামালের বাবা ও বন্ধু রাকিবকে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান।

তারাই মরদেহটি কামালের বলে শনাক্ত করে। তিনদিন পানিতে ডুবে থাকায় মরদেহটি বিকৃত হয়ে গেছে।

গত ৬ ডিসেম্বর চশমা খালে পড়ে নিখোঁজ হয় কামাল।

পরদিন মঙ্গলবার বিকাল ৪টা থেকে উদ্ধার অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিস।

নিখোঁজ কামাল ষোলশহর স্টেশনে এলাকার মো. কাউসারের ছেলে।

তারা ষোলশহর স্টেশন এলাকায় ফুটপাতে থাকতেন। কামাল চার ভাই বোনের মধ্যে সবার ছোট।

জানা যায়, সোমবার বিকাল ৪টার দিকে নিখোঁজ কামাল ও তার বন্ধু রাকিবকে নিয়ে চিটাগং শপিং কমপ্লেক্সের বিপরীতে ভূমি অফিসের সামনে চশমা খালে সাঁতার কাটতে গিয়ে ময়লাযুক্ত পানিতে ভেসে যায়।

ওই সময় পানির স্রোতে কামাল ভেসে গেলেও দেয়ালের ধাক্কা খেয়ে প্রাণে বেঁচে যায় তার বন্ধু রাকিব।

নিখোঁজের পর রাকিব বিষয়টি তার বাবাকে জানালে কামালের বাবা ভয়ে কাউকে না জানিয়ে কয়েক দফা নিজে খোঁজাখুজি করেও পাননি।

ছেলেকে হারিয়ে রাত পার হয়ে সকাল হলেও কাউকে জানাতে সাহস করেননি হতভাগা বাবা।

সকালেও খোঁজাখুজি করে না পেয়ে ৭ ডিসেম্বর বিকাল ৩টার দিকে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের তিন ইউনিট উদ্ধার কাজ শুরু করে।

নিখোঁজ শিশু কামালের বাবা কাউসার বলেন, আমার ছেলে পত্রিকা বিক্রি করতো।

আমার স্ত্রী মারা যাওয়ার পর চার সন্তানকে নিয়ে ষোলশহর স্টেশনের ফুটপাতে থাকতাম।

আমরা গরীব মানুষ। দিনে রোজগার করে দিনে খায়। আমি ভয়ে কাউকে বলি নাই।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর