ফেসবুক ডিসকভার দিয়ে ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করুন

সম্প্রতি দরকারি সেবার জন্য ফ্রি ইন্টারনেট এর উদ্যোগ হিসাবে ফেসবুক ডিসকভার নামের একটি সেবা চালু হয়েছে বাংলাদেশে।

ফ্রি ফেসবুক এর পাশাপাশি ফ্রি ইন্টারনেট এর সুবিধা প্রদান করে ডিসকভার নামের এই সার্ভিস। ডিসকভার সেবাটি অ্যাপ এবং ওয়েবসাইট দ্বারা ব্যবহার করা যায়। এটি অনেক বড় একটি উদ্যোগের অংশ।

চলুন জেনে নেওয়া যাক ফেসবুক ডিসকভার কি, ফ্রি ডিসকভার এর সুবিধা, ডিসকভার অ্যাপ এর ফিচারসমুহ ও কিভাবে ডিসকভার থেকে ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

ফেসবুক ডিসকভার কি? | What is Facebook Discover?
আলোচ্য সেবা ডিসকভার হলো ফেসবুক এর পক্ষ থেকে একটি অ্যাপ/সার্ভিস, যা ব্যবহার করে বিনামূল্যে বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করা যাবে।

সাপোর্টেড নেটওয়ার্কসমূহে ডিসকভার অ্যাপ ব্যবহার করে প্রতিদিন পাওয়া যাবে ফ্রি মোবাইল ডাটা।

এই ফ্রি মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করে ইন্টারেট সার্চ করা যাবে ও বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করা যাবে।

অর্থাৎ বাংলাদেশের সকল মানুষ যাতে ফেসবুক ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবসাইট বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারে তার সুযোগ করে দিচ্ছে ফেসবুক ডিসকভার।

অবশ্য, বাংলাদেশের বাইরেও বেশ কিছু দেশে ফেসবুকের সাথে মোবাইল অপারেটরসমূহের চুক্তির মাধ্যমে সেসব দেশের মানুষ ফ্রি ইন্টারনেট সেবা ব্যবহার করতে পারেন।

ডিসকভার অ্যাপে সাপোর্টেড ওয়েবসাইট এর শুধুমাত্র টেক্সট ও আইকন দেখা যায়।

উক্ত ওয়েবসাইটে থাকা কোনো ভিডিও, ছবি দেখা যাবে না।

অপারেটর কতৃক ঠিক করে দেওয়া নির্দিষ্ট মাত্রার ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন ডিসকভার ব্যবহারকারীগণ।

ফেসবুক ডিসকভার এর সুবিধা কি?
ফেসবুক ডিসকভার ব্যবহার করে বিনামূল্যে সার্চ করা যাবে ও বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করা যাবে। ফেসবুক ডিসকভার এর সুবিধাসমুহ হলোঃ

-দৈনিক খবর পড়া
-লাইভ খেলার আপডেট জানা
-চাকরি খোঁজা
-আবহাওয়ার খবর জানা
-ফেসবুক ডিসকভার এর উদ্দেশ্য
আমাদের দেশে ইতিমধ্যে ৪জি ইন্টারনেট বা ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা বেশ জনপ্রিয় হলেও বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ এখনো ইন্টারনেট সুবিধা থেকে বঞ্চিত।

এছাড়াও ইন্টারনেট খরচের কারণে অনেকের পক্ষে নিয়মিত ডাটা কেনা সম্ভব হয় না।

যেমন ধরুন একজন শিক্ষার্থী যার কোনো আয় নেই। তিনি যদি পড়ালেখা কিংবা অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে জানতে চান তাহলেও তার ইন্টারনেট প্যাকেজ কিনে সে সম্পর্কে জানতে হবে।

এক্ষেত্রে তিনি ফেসবুক ডিসকভার ব্যবহার করে ফ্রি গুগল সার্চ করতে পারবেন।

সেই সাথে ইয়াহু, বিং, আস্ক ডটকম এসব সার্চ ইঞ্জিনও ব্যবহার করা যাবে।

সুবিধাবঞ্চিত মানুষের কথা চিন্তা করে ডিসকভার নামে বিনামূল্যে ইন্টারনেট সেবা চালু করেছে ফেসবুক।

মূলত সকল স্তরের মানুষের কাছে বেসিক ইন্টারনেট সেবা পৌঁছানো এই ডিসকভার ফিচার এর মূল উদ্দেশ্য।

অর্থাৎ ডাটা শেষ হয়ে গেলে বা কেনার অপশন না থাকলে সেক্ষেত্রে ইন্টারনেট সুবিধা থেকে কেউই বঞ্চিত হবেনা।

ফেসবুক এর ফ্রি ডিসকভার ফিচারের মাধ্যমে সকল স্তরের মানুষ ইন্টারনেট সেবা ভোগ করতে পারবে।

এই একই উদ্যোগের সাথে বিনামূল্যে ফেসবুক (টেক্সট অনলি) সেবাও চালু হয়েছে বাংলাদেশে।

ফেসবুক ডিসকভার এর ফিচারসমুহ
ডিসকভার এর মাধ্যমে প্রতিদিন ১৫এমবি ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে।

প্রতিমাসে সর্বোচ্চ ১৫০এমবি ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে ডিসকভার ওয়েবসাইট ও ডিসকভার অ্যাপ ব্যবহার করে।

ফেসবুক ডিসকভার ওয়েবসাইট বা অ্যাপে প্রবেশের পর একটি সার্চ বক্স ও কিছু সরকারী ও গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবসাইট দেখা যায়।

সার্চ বক্সে যেকোনো বিষয়ে গুগল সার্চ করা যাবে। গুগল সার্চ এর রেজাল্টে থাকা যেকোনো ওয়েবসাইট বিনামূল্যে ভিজিট করা যাবে।

ডিসকভার ওয়েবসাইট বা অ্যাপ এর হোমপেজে বর্তমানে নিম্নোক্ত সরকারি ওয়েবসাইট রয়েছে (ভবিষ্যতে আরও নতুন ওয়েবসাইট যুক্ত হতে পারেঃ

শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট
-মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট
-ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট
-ডিসকভার ওয়েবসাইট বা অ্যাপ এর হোমপেজে নিম্নোক্ত কোভিড-১৯ সম্পর্কিত ওয়বসাইট ভিজিট করা যাবেঃ

আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সংস্থার ওয়েবসাইট
-করোনা ইনফো ওয়েবসাইট

এছাড়াও ডিসকভার অ্যাপ বা ওয়েবসাইটে থাকা সার্চবার ব্যবহার করে যেকোনো বিষয়ে সার্চ করা যাবে ও সার্চ রেজাল্টে আসা ওয়েবসাইট ভিজিট করা যাবে।

এছাড়াও উক্ত সার্চ বক্সে যেকোনো ওয়েবসাইটের এড্রেস লিখে উক্ত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাবে।

ডিসকভার এর ওয়েবসাইট ও অ্যাপে ডিফল্টভাবে গুগল সার্চ সেবা চালু থাকে। তবে আপনি চাইলে সার্চ ইঞ্জিন পরিবর্তন করতে পারবেন।

এজন্য ডিসকভার সেটিংস ওপেন করুন। ফেসবুক প্রদত্ত ফ্রি ডাটা ব্যবহার করার ক্ষেত্রে অডিও, ভিডিও ও ছবি দেখা যাবেনা।

ডিসকভার ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

ডিসকভার অ্যাপ ডাউনলোড করুন

ডিসকভার কিভাবে কাজ করে?
ডিসকভার ইন্টারনেট চার্জ ছাড়া ওয়েবসাইট এর ডাটা দ্রুত লোড করে।

মূলত প্রক্সি ব্যবহার করে ওয়েবসাইট দ্রুত লোড হওয়ার ব্যাপারটি সম্ভব হয়।

ডিসকভার সেবাটি তার নিজের প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করে প্রথমে ভিজিটকৃত সাইট ওপেন করে।

এরপর সেই প্রক্সি সার্ভারের সিস্টেম এমনভাবে পেজগুলো ব্যবহারকারীর ফোনে পাঠায় যাতে কোনো ধরনের ভিডিও, অডিও বা ডাটা বেশি ব্যবহার হয় এমন কনটেন্ট লোড হয়না।

এছাড়াও প্রক্সি ব্যবহার করে ক্ষতি করতে পারে এমন কোডও ওয়েবসাইট থেকে রিমুভ করে ডিসকভার।

সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সুন্দরভাবে কাজ করার লক্ষ্যে একটি নিরাপদ সার্ভারে ওয়েবসাইট এর ডাটা জমা থাকে।

ডিসকভার উক্ত ওয়েবসাইটসমূহের ডাটা একটি রিডেবল ও এনক্রিপটেড ফরম্যাটে সেভ করে রাখে। এভাবে খুব সহজে দ্রুত ওয়েবসাইটসমূহ লোড করতে পারে ডিসকভার।

ফেসবুক ডিসকভার ব্যবহারের নিয়ম
ফেসবুক ডিসকভার ব্যবহারের নিয়ম খুব সহজ। ফেসবুক ডিসকভার ব্যবহার করা যাবে ওয়েবসাইট বা অ্যাপ ব্যবহার করে।

মনে রাখবেন, ফোনে ইন্টারনেট ডাটা না থাকলে ডিসকভার অ্যাপ এর ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করে যাবে।

প্রতিদিন সর্বোচ্চ ১৫এমবি ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে ডিসকভার অ্যাপ ব্যবহার করে।

আবার মাসিক সর্বাধিক ১৫০এমবি ডাটা ব্যবহার যাবে ডিসকভার অ্যাপ বা ওয়েবসাইটে। যখন আপনার ফোনের মোবাইল ডাটা ব্যালেন্স ০ থাকবে তখন এটা ট্রাই করতে পারেন।

গ্রামীণফোন মোবাইলের একাউন্টে ডাটা শেষ হওয়ার পর Pay As You Go প্ল্যানের লিমিট হিসেবে ৬.০৮৭৫ টাকায় সর্বোচ্চ ৫ মেগাবাইট পর্যন্ত খরচ হওয়ার পর ডিসকভার মোবাইল অ্যাপ বা ওয়েব ব্রাউজারের মাধ্যমে বিনামূল্যে ডিসকভার সাইট ব্যবহার করতে পারবেন। তবে একাউন্ট ব্যালেন্সে টাকা না থাকলে সাথে সাথেই ফ্রি ডাটা ব্যবহার করতে পারবেন।

বর্তমানে শুধুমাত্র গ্রামীণফোন সিমে ডিসকভার অ্যাপের ফ্রি ইন্টারনেট ও ফ্রি ফেসবুক ব্যবহার করা যাবে।

তবে আশা করা যায় শীঘ্রই দেশের সকল অপারেটরে আসতে চলেছে এই ফ্রি ইন্টারনেট সুবিধা।

ডিসকভার অ্যাপ বা ওয়েবসাইট ব্যবহার করে যেকোনো ওয়েবসাইট বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে।

এছাড়াও ফ্রি ফেসবুক সেবাও চালু করেছে ফেসবুক।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর