যে কারণে পাকিস্তান সিরিজে আকবরকে নেওয়া হলো

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ভরাডুবির পর দলে বড় পরিবর্তনের আভাস পাওয়া গিয়েছিল।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয় টাইগারদের। গোটা দলকে ঢেলে সাজানোর গুঞ্জন ওঠে।

এ সময় বিশ্বকাপজয়ী অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের কথা আলোচনায় আসেন।

গত কয়েকদিন প্রায় ২০ জনের অধিক ক্রিকেটার নিয়ে অনুশীলনে যোগ দেন খালেদ মাহমুদ সুজন।

যেখানে ছিলেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের পারফরমার পারভেজ হোসেন ইমন ও তৌহিদ হৃদয়।

মঙ্গলবার ১৬ জনকে নিয়ে অনুশীলন শুরু করা হয় দুপুর ১টার দিকে।

কিন্তু এদিন বেলা সাড়ে ৪টায় দল ঘোষণায় ১৫ জনের নাম বলেন প্রধান নির্বাচন মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। যেখানে ছিল না ইমন ও হৃদয়ের নাম।

সঙ্গে ১৬ নম্বর সদস্য হিসেবে বললেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের অধিনায়ক আকবর আলীর নাম।

আকবরের নাম শুনে বিস্মিত হন উপস্থিত সাংবাদিকরা। কারণ অনুশীলনে আকবর কোথাও ছিলেন না।

হঠাৎ আকবরের অন্তর্ভূক্তির কারণ জানান মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

সাংবাদিকদের নান্নু জানান, মুশফিক-লিটনের অবর্তমানে বাড়তি উইকেটরক্ষক হিসেবেই আকরবকে নেওয়া।

তবে খেলানো বা না খেলানোর সিদ্ধান্ত টিম ম্যানেজমেন্টের উপর।

নান্নু বলেন, ‘সোহান কিন্তু আমাদের এক নম্বর উইকেটরক্ষক। কিন্তু এখানে ইনজুরির ব্যাপার আছে, সোহান ছাড়া দলে আর কোনো উইকেটরক্ষক নেই।

সেই হিসেবে আকবরকে রাখা হয়েছে। টিম ম্যানেজমেন্ট চাইলে ওকে খেলাতে পারবে।ওর পারফরম্যান্সের চেয়ে উইকেটকিপিং বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

কিপিংয়ের কথা চিন্তা করে ওকে ব্যাকআপ হিসেবে নিয়েছি। আমরা এখনও কিন্তু বলছি না ও খেলবে।

যদি মূল কিপার ইনজুরিতে পড়ে তখন ওর কথা চিন্তা করা হবে।

ওকে স্কোয়াডের সাথে রেখে ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করাও গুরুত্বপূর্ণ।’

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর