লেবাননের কাছে সৌদির ক্ষমা চাওয়া উচিত: হিজবুল্লাহ

লেবাননের কাছে সৌদি আরবের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর উপমহাসচিব শেখ নাঈম কাসেম।

তিনি বলেন, তার দেশকে টার্গেট করে সৌদি আরব সম্প্রতি যে তৎপরতা চালিয়েছে, তার জন্য রিয়াদকে ক্ষমা চাইতে হবে।

লেবানন এবং সৌদি আরবের মধ্যে সম্প্রতি যে কূটনৈতিক যুদ্ধ চলেছে, শেখ নাঈম কাসেম মূলত তার দিকে ইঙ্গিত দিয়েছেন। খবর ফ্রান্স২৪।

লেবাননের একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বৃহস্পতিবার শেখ নাঈম কাসেম সৌদি আরবকে অভিযুক্ত করে বলেন, দেশটি লেবাননের বিরুদ্ধে যুদ্ধের পদক্ষেপ নিয়েছে।

সৌদি আরবের এই ভুল এবং অনৈতিক পদক্ষেপের জন্য রিয়াদকে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে।

গত মাসের শেষের দিকে লেবানন থেকে সৌদি আরব নিজের রাষ্ট্রদূতকে দেশে ডেকে পাঠায় এবং রিয়াদে নিযুক্ত লেবাননের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করে।

এর আগে লেবাননের তথ্যমন্ত্রীর জর্জ কোরদাহি আলজাজিরা টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন— সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং তার অন্য মিত্ররা ইয়েমেনের ওপরে যে যুদ্ধ চাপিয়ে দিয়েছে, তা নিতান্তই সামরিক আগ্রাসন। এই আগ্রাসন বন্ধের সময় এসেছে এখন।

ইয়েমেনের হুতি আনসারুল্লাহ আন্দোলন এবং তাদের সমর্থিত সামরিক বাহিনী বাইরের আগ্রাসন থেকে নিজেদের রক্ষার লড়াই করছে বলেও তিনি উল্লেখ করেছিলেন।

জর্জ কোরদাহির এ বক্তব্যে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহারাইন ও কুয়েত লেবাননের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে এবং দেশটির সঙ্গে তারা কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনতি ঘটায়।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর