মঙ্গলবার, মে ১৭, ২০২২

বাগরাম থেকে ছাড়া পেয়ে কাবুল বিমানবন্দরে হামলা

কাবুল বিমানবন্দরে ভয়াবহ আত্মঘাতী হামলাকারী বাগরাম ঘাঁটিতে বন্দী ছিলেন।

১৫ আগস্ট তালেবান এই ঘাঁটি দখলে নিয়ে কারাবন্দিদের মুক্ত করে দেয়।

কারামুক্ত হয়েই আইএস খোরাসান শাখার সদস্য ভয়াবহ হামলা চালান।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গণমাধ্যম সিএনএন এই খবর প্রকাশ করেছে।

২৬ আগস্ট আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ওই হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের ১৩ জন মেরিন সেনাসহ অন্তত ২শ মানুষ নিহত হয়।

সিএনএনের খবর অনুসারে, বাগরামের পারওয়ান কারগার ও কাবুলের নিকটস্থ পুল-ই চরখি কারগারে তালেবান বন্দিদের সঙ্গে কয়েকশ আইএস সদস্যও বন্দি ছিল।

১৫ আগস্ট তালেবান কারাগারের দখল নিয়ে নিজেদের লোকজনসহ আইএস সদস্যদেরও মুক্ত করে দেয়। এই ঘটনার ১১ দিন পর বিমানবন্দরে ভয়াবহ হামলা চালানো হয়।

ঘটনার পর আইসিস খোরাশান শাখা দায় স্বীকার করে। হামলাকারীর নাম আব্দুল রেহমান আল লঘরি বলে জানায় তারা। যুক্তরাষ্ট্রের দুইজন কর্মকর্তা হামলাকারীর পরিচয় নিশ্চিত হয়েছেন।

তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা নেওয়ার পর দেশটিতে থাকা আইএস মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।

গত দুই মাসে তাদের আত্মঘাতী ও আইইডির মাধ্যমে করা হামলায় বেসামরিক নাগরিকসহ বেশ কয়েকজন তালেবান সদস্যও নিহত হয়েছে।

তালেবান আইএসের বিরুদ্ধে বড়সড় অভিযান শুরু করেছে।

তালেবান কর্তৃপক্ষ সোমবার দাবি করেছে, আফগানিস্তানের রাজধানীতে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের সক্রিয় একটি শাখাকে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

আপনার জন্য নির্বাচিত খবর

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন

যুক্ত হউন

1,000FansLike
1,000FollowersFollow
100,000SubscribersSubscribe

সর্বশেষ খবর