প্রচ্ছদ

জেনে রাখো : জ্যামিতির জনক কে?

প্রাচীন অঙ্কশাস্ত্রবিদ ইউক্লিড যিশুখ্রিস্টের জন্মের বহু আগে গ্রিসে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর জন্ম ও জীবন সম্বন্ধে প্রামাণ্য তথ্য পাওয়া যায় না। অনুমান করা হয়, যিশুখ্রিস্টের জন্মের প্রায় ৩০০ বছর আগে তিনি জন্মগ্রহণ করেছেন। ইউক্লিডের ‘জ্যামিতিক সূত্র’সমূহ সে সময় শুধু নয়, আজও স্কুল-কলেজে পড়ানো হয়ে থাকে, কারণ সকল জ্যামিতিক ধারণাই তাঁর সূত্রের ওপর ভিত্তি করে তৈরি। ইউক্লিড মহাজ্ঞানী প্লেটোর বিখ্যাত স্কুলে পড়াশুনা করেছেন বলে প্রচলিত আছে। রাজনৈতিক কারণে প্লেটোর স্কুলটি স্থানান্তরিত করা হয়েছিল মিসরের প্রাচীন সমুদ্রবন্দর

মাত্র ৭ লাখ টাকায় এমন সুন্দর বাড়ি তৈরি করে দিচ্ছে এই কম্পানি, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন

মাত্র ৭ লাখ টাকায় এমন সুন্দর বাড়ি তৈরি করে দিচ্ছে এই কম্পানি, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুনঃছোট্ট সুন্দর একটি সুন্দর বাড়ি সকলের স্বপ্ন। কিন্তু বর্তমান সময়ে একটি বাড়ি করতে খরচ অনেক। তাই মধ্যবিত্বের পক্ষে সুন্দর বাড়ি নির্মান করা সম্ভব হয় না। বর্তমান সময়ে ইট রট সিমেন্ট এর দাম যে পরিমান বেড়েছে তাতে একটি ছোট্ট বাড়ি নির্মান করতেও প্রয়োজন পরে ১৫ থেকে বিশ লাখ টাকা। যার কারনে স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাই। যারা চাচ্ছেন

এইডস এর লক্ষণগুলো জেনে নিন

এইচআইভি এইডস একটি ভয়ঙ্কর মারণ ব্যাধি। সারা পৃথিবীতে লাখ লাখ মানুষ প্রতি বছর এতে প্রাণ হারান। দীর্ঘ সময় ধরে আলাদা কোনও শারীরিক সমস্যা ছাড়াই এই মারণ রোগ শরীরে জাঁকিয়ে বসে। ধীরে ধীরে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে নষ্ট করে দেয়। তারপর শরীরে কোনও রোগ বাসা বাঁধলে শরীর আর তা সইতে পারে না। অসুরক্ষিত যৌনজীবন, ওরাল সেক্স, আক্রান্তের রক্ত শরীরে যাওয়া, বাবা-মায়ের শরীর থেকে নবজাতকের শরীরে রক্ত বয়ে আসা, ইত্যাদি নানা কারণে

ঢাকার ৫টি রহস্যময় ভৌতিক জায়গা

ছোটবেলায় ভুতের গল্প শুনতে শুনতে অনেকেরই শখ হয়েছে ভুত স্বচক্ষে দেখার। আর তাই অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয়রা খোঁজ পেলে বেরিয়ে পড়েন ভুতুড়ে জায়গার সন্ধানে। সেসব মানুষের জন্য সুখবর(!)। রাজধানী ঢাকাতেই রয়েছে এমন কিছু ভৌতিক স্থান বা ঘটনা যার রহস্য সমাধান হয়নি আজও। জেনে নিন তেমনই কয়েকটি স্থানের কথা। এয়ারপোর্ট রোড ঢাকার সবচেয়ে পুরানো মহাসড়কগুলোর অন্যতম। এই মহাসড়ক নিয়ে রয়েছে নানান ভুতুড়ে গল্প। গভীর রাতে এখানে নাকি অশরীরীর দেখা পাওয়া যায়- এমন দাবি করেছেন অনেকেই। গাড়ি চালাতে চালাতে হঠাৎ করেই চালক

ইনডোর প্ল্যান্টের সঠিক যত্ন।

আমরা আমাদের বাড়ি ঘরের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন রকমের ইনডোর প্ল্যান্ট নিয়ে আসি। প্রথম প্রথম গাছাগুলো দেখতে ভালোই লাগে। কিন্তু কিছুদিন যাওয়ার পর গাছগুলো অসুস্থ্য দেখায়। কিছু কিছু গাছা মারাও যায় তারা তারি। আমরা অনেকই জানি না শুধুমাত্র একটু যত্নের ওভাবে এই গাছগুলো এমন হয়ে থাকে। কারণ অনেকই ইনডোর আর আউটডোরের গাছের যত্ন আলাদা করতে পারেন না। আজ আমরা আপনাদের জানাবো কীভাবে গাছের সঠিক যত্ন নিতে হবে। মানি প্ল্যান্টের মতো যেসব গাছ

ছেলেদের পড়ানোর জন্য বেশি সঞ্চয় করে বাবা-মা

মেয়েরা বিশ্ববিদ্যালয়ে যে বিষয়ে পড়ে তাতে তেমন ভাল চাকরি পাওয়া যায় না। সেই চাকরিতেও মেয়েদেরকে ছেলেদের চাইতে কম বেতন দেয়া হয়। নারীরা ব্যবসায় পুরুষদের চেয়ে কম টাকা খাটান। এসব কিছু শুরু হয় মেয়ের বাবা-মায়ের সঞ্চয় পরিকল্পনা থেকে। সম্প্রতি দুটি গবেষণায় দেখা গেছে, বাবা-মায়েরা তাদের ছেলেদের পড়ানোর জন্য যত টাকা সঞ্চয় করে, মেয়েদের পড়ানোর জন্য অতটা করে না। গবেষণার ফলাফলগুলো নিয়ে একটি প্রতিবেদনব প্রকাশ করেছে মার্কিন গণমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। টি

কোন সংস্থার সদর দফতর কোথায়?

অনেক সময় বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ কিছু সংস্থার সদর দফতর সম্পর্কে জানা আমাদের জন্য জরুরি হয়ে পড়ে। বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা, বিসিএস ও চাকরির পরীক্ষার ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই আসুন জেনে নেই কোন সংস্থার সদর দফতর কোথায়? ১. ইউএনডিপি- নিউইয়র্ক ২. জাতিসংঘ- নিউইয়র্ক ৩. সিআইএ- ভার্জিনিয়া ৪. ওআইসি- জেদ্দা ৫. আইআরআরআই- ফিলিপাইন (লস ব্যানোস) ৬. সার্ক- নেপাল (কাঠমুন্ডু) ৭. ইউরোপীয় ইউনিয়ন- ব্রাসেলস ৮. ন্যাটো- ব্রাসেলস ৯. ইউনেসকো- প্যারিস ১০. ডব্লিউআইপিও- জেনেভা ১১. ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল- বার্লিন, জার্মানি ১২. আন্তজার্তিক রেডক্রস- জেনেভা ১৩. এডিবি- ম্যানিলা ১৪. ইসলামি

মানুষ যেতে পারে না পৃথিবীর এমন ৮ স্থান!

সকল বাঁধাকে উপেক্ষা করে মানুষ এখন বার বার মহাকাশে গেলেও পৃথিবীর বুকে কয়েকটি জায়গায় মানুষের প্রবেশ নিষেধ রয়েছে। সেই যায়গা গুলোতে হয় রয়েছে প্রাণহানির আশঙ্কা, না হয় রয়েছে সামাজিক বাঁধা।চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক সেই স্থানগুলো- নর্থ সেন্টিনেল দ্বীপ : এমন স্থান গুলোর তালিকায় সবার প্রথমেই নাম আসবে আন্দামানের। আন্দামানের নর্থ সেন্টিনেল দ্বীপে মানুষ থাকে ঠিকই! তবে, সেই উপজাতি অন্য কোনও মানুষের সংসর্গ একেবারেই পছন্দ করে না। ১৯৭৫ সালে

বিশ্বজুড়ে পতিতা ও পতিতাবৃত্তির আদ্যোপ্রান্ত!

পতিতা,বেশ্যা,গণিকা শব্দটি শুনলেই শরীর ঘিনঘিন করে।সমাজের এধরনের কারো সাথে পরিচিত হলে সাধারণত আমরা লোক দেখানো ঘৃনার চোখে দেখি।হয়ত লোকচক্ষুর অন্তরালে আমরাই তাদের খরিদ্দার।বড় আশ্চর্য,বড় কষ্টের। তাদেরকে সমাজে মেনে নেওয়া একটি মারাত্মক অপরাধ বলে মনে করে ক্যানসারে আক্রান্ত সমাজের বিচার বিভাগের সমাজপতিরাও।কেও ভাবে না একটু সহযোগীতা,সাহস,ভালবাসা,পৃষ্ঠপোষকতা পেলে তারাও সুন্দর সমাজের বাসিন্দা হয়ে বাচতে পারে। অর্থের বিনিময়ে যৌনতা বিক্রির ইতিহাস সুপ্রাচীন। ওয়েবস্টার অভিধান মতে, সুমেরিয়ানদের মধ্যেই প্রথম পবিত্র পতিতার দেখা মেলে। প্রাচীন

সম্পর্কগুলো বদলে দেয় সময়!

আমার চোখে দেখা সবচেয়ে সুখী পরিবারটিও একদিন এলোমেলো হয়ে গেছে! ঋণের বোঝা সইতে না পেরে পরিবারের কর্তা লোক লজ্জার ভয়ে পালিয়ে বেড়ায়….! সবচেয়ে সুখী দম্পতিকে দেখিছি কিছু দিন পর আলাদা হয়ে তারা আলাদা আলাদা সংসার করছে! রোজ হাসি গানে মুখর থাকতো এমন একটি পরিবারকে দেখেছি তারা আর কখনো হাসে না! চোখের সামনে একটি যৌথ পরিবারের দাদা দাদী বাবা মা ক্রমান্বয়ে মরে যাওয়ার পর দেখেছি ওখানে স্বামী স্ত্রী আর এক সন্তানসহ