,

১০ ঘণ্টা পর আবারো থ্রিজি-ফোরজি নেটওয়ার্ক চালু

সারাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের থ্রিজি-ফোরজি সেবা প্রায় ১০ ঘণ্টা বন্ধের পর আবারো চালু করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ৮টার পর বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) দেশের সব মোবাইল ফোন অপারেটরকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত থ্রি-জি ও ফোর-জি নেটওয়ার্ক চালু রাখার নির্দেশ দিয়েছে।

এর আগে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মোবাইল ইন্টারনেটের থ্রিজি ও ফোরজি সেবা বন্ধ থাকবে বলে বৃহস্পতিবার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

এর প্রেক্ষিতে ওইদিনই (বৃহস্পতিবার) রাত ১০টার পর থেকে থ্রিজি-ফোরজি সেবার গতি কমানোর নির্দেশনা বিটিআরসির পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছিল বলে সূত্রে জানা যায়। তবে টুজি সেবা অব্যাহত ছিল।

এই নির্দেশনার ফলে ইন্টারনেটের গতি কমে যায়। ফলে গত ১০ ঘণ্টায় মোবাইল ইন্টারনেটে টেক্সট পাঠানো ও গ্রহণ করা গেলেও ছবি ও ভিডিও পাঠানো সম্ভব হয়নি। ইন্টারনেটের গতি কমে যাওয়ার কারণে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমগুলো ব্যবহার করাও কষ্টকর হয়ে যায়।

আসন্ন সংসদ নির্বাচনের ভোটের আগে ‘অপপ্রচার’ ঠেকাতে গত ১৩ ডিসেম্বর এক বৈঠকে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) ইন্টারনেটের গতি কমানোর প্রস্তাবনা দেয় পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। ওই বৈঠকে সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন কমিশন আয়োজিত আইন-শৃঙ্খলাবিষয়ক সমন্বয়সভায় এই পরামর্শ দেয়া হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। এতে সব বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি, সব রিটার্নিং অফিসার, জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

এরপর গত ১৯ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ভোটের দিন বিকেল ৪টার পর ইন্টারনেটের গতি স্বাভাবিক রাখার ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়েছিলেন।

এদিকে এক নির্দেশনায় শুক্রবার থেকে সব ধরনের মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সেবা কল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। রোববার বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ সেবা বন্ধ থাকবে। ফলে ব্যাংকের পাশাপাশি বিকাশ, রকেট, ইউক্যাশ, এম ক্যাশ, শিওর ক্যাশের মতো সেবা বন্ধ থাকছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন


     এই ধরনের আরো...