লাইফ-স্টাইল

স্ত্রী যখন পুরুষদের হার্ট অ্যাটাকের কারণ!

আজকাল হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সমস্যা ক্রমাগত বেড়েই চলেছে, সেই সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর ঝুঁকিও। আর হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার অন্যতম প্রধান একটি কারণ হলো স্ট্রেস। বর্তমানে কম্পিটিশনের দুনিয়ায় স্ট্রেস একটি দৈনন্দিন সঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই স্ট্রেস থেকে দূরে থাকার জন্য বিজ্ঞানীরা এবার নতুন একটি উপায় বের করেছেন। তবে তা পুরুষদের জন্য বেশি প্রযোজ্য। তাদের এই নতুন পন্থা নাকি ইতিমধ্যেই সফলভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে পুরুষদের উপর।

বৈজ্ঞানিকদের মতে, শত ব্যস্ততার মাঝেও সময় বের করে স্ত্রীর সঙ্গে সময় কাটালে, কথা বললে নাকি ভালো থাকা যায়। প্রচণ্ড ক্লান্তিতে বা বিষাদগ্রস্ততায় স্ত্রীর সঙ্গে মনের সব কথা শেয়ার করলে হৃৎপিণ্ডটি সুস্থ থাকবে। মার্কিন গবেষকরা তাদের গবেষণায় দেখেছেন, সঙ্গীর সঙ্গে ইতিবাচক কথা বললে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমে যায়। সম্প্রতি আমেরিকায় কয়েকজন গবেষক জানিয়েছেন, স্ত্রীর সঙ্গে অতিরিক্ত নেতিবাচক কথা বললে তা সরাসরি হার্টের সমস্যা তৈরি করে দেয়। বিভিন্ন পরীক্ষায় নাকি তা ইতিমধ্যেই প্রমাণিত হয়েছে। তারা আরো জানিয়েছেন, যারা স্ত্রীর সঙ্গে বেশি ঝগড়া করেন তাদের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। তাই ঝগড়া নয়, ইতিবাচক কথা বলুন স্ত্রীর সঙ্গে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

One Reply to “স্ত্রী যখন পুরুষদের হার্ট অ্যাটাকের কারণ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *