শিশুর জন্য সেরেলাক তৈরী করুন নিজেই

সাত মাস পর থেকে বুকের দুধের পাশাপাশি শিশুদের দেয়া হয় সেরেলাক, খিচুড়ি কিংবা সুজি। বর্তমানে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন স্বাদের সেরেলাক। তবে সেগুলো বাচ্চাদের জন্য কতটুকু স্বাস্থ্যকর তা নিয়ে রয়েছে সন্দেহ। তাই ১ বছরের বাচ্চার সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে ঘরেই সেরেলাক তৈরি করার পক্ষে আরিফা হোসেইন। পেশায় আইনজীবী এই মা আরটিভি অনলাইন পাঠকদের জন্য শেয়ার করেছেন তার এই ঘরোয়া রেসিপি।

উপকরণ:
নাজিরশাইল চাল ২০০ গ্রাম, পোলাও চাল ১০০ গ্রাম, লাল বিন্নি চাল ১০০ গ্রাম, কালো বিন্নি চাল ৫০ গ্রাম, মুসুর ডাল ৫০ গ্রাম, মাস কালাই ডাল ৫০ গ্রাম, মুগ ডাল ৫০ গ্রাম, রাজমা ২ মুঠ, ছোলা (খোসা ছাড়া) ১০০গ্রাম, গম ১০০ গ্রাম, ভুট্টা ১০০ গ্রাম, চিনা বাদাম ১০০ গ্রাম, কাঠ বাদাম ১০০ গ্রাম এবং সাগু দানা ১০০ গ্রাম।

প্রস্তুতি:
সাগু দানা বাদে সব উপকরণ ভালোভাবে ঝেড়ে পরিষ্কার করতে হবে। পানি ঝরিয়ে সেগুলো রোদে শুকাতে হবে। উপকরণগুলো শুখিয়ে গেলে সব একসাথে চাল ভাঙানোর মেশিনে গুঁড়া করে কাচের বোতলে সংরক্ষণ করুন। এভাবে ঘরের তৈরি সেরেলাক ফ্রিজে রেখে ২ থেকে ৩ মাস ব্যাবহার করা যাবে।

প্রণালী: একটি পাত্রে ২ কাপ গরম পানিতে ২ টেবিল চামচ সেরেলাক দিন। পানি ফুটে উঠলে সেরেলাক নামিয়ে ফেলুন। বাচ্চার পছন্দ অনুযায়ী সবজি কিংবা ফল দিন।
স্বাদের জন্য সেরেলাক পাতলা বা ঘন রাখতে পারেন। সেরেলাক স্বাভাবিক তাপমাত্রায় চলে এলে বাচ্চাকে খাওয়াবেন। বাচ্চার হজম অনুযায়ী উপকরণ বাড়ানো, কমানো কিংবা বাদ দেয়া যাবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

2 thoughts on “শিশুর জন্য সেরেলাক তৈরী করুন নিজেই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *