‘বেঙ্গলি বিউটি’ টয়া

'বেঙ্গলি বিউটি' টয়া

চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের সঙ্গে একটি মুঠোফোনের বিজ্ঞাপনে এক নতুন মুখের বলা সংলাপ-‘এতো অসম্ভব’ ২০১৩ সালে বেশ দর্শকপ্রয়তা পায়। আর সেই সংলাপ এবং হার্টথ্রব বিউটি দিয়ে সেসময় সবার নজর কাড়েন নতুন মুখ টয়া।

২০১০ সালের ‘লাক্স চ্যানেল আই প্রতিযোগিতা’র শীর্ষ পাঁচ-এ থাকা টয়া বর্তমানে নাটক, টেলিফিল্ম, ওয়েব সিরিজ, বিজ্ঞাপন, উপস্থাপনা, স্বল্পদৈঘ্য চলচ্চিত্রসহ কাজ করছেন মিউজিক ভিডিওতে।

বাকপটু এ মডেল অভিনেত্রী বন্ধু মহলে ‘টমবয়’ হিসেবে বেশ পরিচিত। সেই ছোটবেলা থেকেই টয়ার চেহারা আর চালচলন ছিল অনেকটা ছেলেদের মতো। কথায় যেমন পটু তেমনি চঞ্চল। তুখোড় আড্ডাবাজ। শ্যুটিং স্পটের যেখানেই হৈহুল্লোড় সেখানেই টয়া! চুপচাপ থাকতে একদম পছন্দ করেন না। লাফালাফিতে তার জুড়ি মেলে না। সে কারণেই নাটকের ডানপিটে চরিত্রগুলোতে পরিচালকদের প্রথম পছন্দ টয়া।
অভিনয়ের পাশাপাশি মিউজিক ভিডিওর মডেল হিসেবেও বেশ আলোচিত টয়া।
বিশেষ করে মমতাজের গাওয়া ‘লোকাল বাস’ গানের মডেল হয়ে অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। কিছুদিন আগে ভিজ্যুয়ালাইজারের ব্যানারে টয়া মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছেন। তার মধ্যে একটি হচ্ছে কাজী শুভর গাওয়া ‘সুন্দরী’। যেখানে অন্যরূপে টয়াকে খুঁজে পাওয়া যাবে। এটি ১১ নভেম্বর এস এ প্রডাকশনের ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত হবে বলে জানা যায়।

অভিনেত্রী ও মডেল মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া বিভিন্ন মাধ্যমে কাজ করলেও চলচ্চিত্রে কাজ করার আগ্রহ ছিল অনেক আগে থেকেই। তবে পুরো বাণিজ্যিক ধারার চলচ্চিত্রে কাজ করার চেয়ে তার বেশি আগ্রহ ছিল বিকল্প ধারার গল্পনির্ভর চলচ্চিত্রের প্রতি। টয়া স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করে অনেক আগেই দর্শকের ভালোবাসা পেয়েছেন। বিশেষ করে তার অভিনীত ‘বখাটে’ ও ‘রূপ’ স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিগুলো আলোচিত হয়।
এবার তিনি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। ছবির নাম ‘বেঙ্গলি বিউটি’। ছবিটি পরিচালনা করছেন রাহসান নূর। ছবিতে টয়ার বিপরীতে অভিনয়ও করেছেন রাহসান নিজেই। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন রাফি তামজিদ।

সত্তর দশকের প্রেক্ষাপটে নির্মিত এ চলচ্চিত্রে এক বেতার কর্মীর সঙ্গে কর্তৃপক্ষের দ্বন্দ্ব-সংঘাত ও এক মেডিকেল ছাত্রীর সঙ্গে তার সম্পর্কের রসায়ন রূপায়ণ করা হয়েছে। ভিয়েতনাম যুদ্ধের চেতনার প্রতিফলন হওয়া চলচ্চিত্রে ঘটেছে রোমান্টিক গল্পের সমৃদ্ধ চিত্রায়ণ।

‘বেঙ্গল বিউটি’র প্রাক-প্রদর্শনী ইতিমধ্যেই প্রশংসা কুড়িয়েছে। ছবিটি দেখতে গিয়ে অনেকেই ভুগেছেন হলিউডের বিখ্যাত সিনেমা ‘গুড মর্নিং ভিয়েতনাম’র নস্টালজিয়ায়।
নিজের অভিনীত প্রথম ছবির গল্প ও চরিত্র প্রসঙ্গে টয়া বলেন, পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে এবারই প্রথম কাজ করলাম। মে মাসে আমরা শুটিং শেষ করেছি। এই ছবিতে আমার চরিত্র ভিন্নরকম। সত্তর দশকের এক নারীর চরিত্রে আমাকে দেখা যাবে। চরিত্রের প্রয়োজনে আমার লুকেও সত্তর দশকের নারীদের মতোই ছবিতে দেখানো হয়েছে। এটুকু বলতে চাই, ‘বেঙ্গলি বিউটি’ চমৎকার একটি গল্পের চলচ্চিত্র। ছবিতে পুরনো দিনের ঢাকার চিত্রও ফুটে উঠবে।

টয়া-রাহসান ছাড়াও সারা আলম, আশফাক রেজওয়ান, পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, মাসুম বাশার, জিএম শহিদুল আলম, সারা আলমনাজিবা বাশার, নেইলি আজাদ প্রমুখ অভিনয় করেছেন এ চলচ্চিত্রে।

‘বেঙ্গলি বিউটি’র শুটিং হয়েছে বাংলাদেশের উত্তরা, বাংলাদেশ বেতারের পুরনো অফিস, শাহবাগ, বনানী, পুরানা পল্টনের বিভিন্ন লোকেশনে। সম্প্রতি ছবিটির টিজার প্রকাশ পেয়েছে। ছবির অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে এটা প্রকাশ করা হয়। আসছে ডিসেম্বরে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা চলছে।

এদিকে, ডিসেম্বরে ঢাকার পর্দায় মুক্তি পেতে চলেছে ‘হালদা’, ‘ভালো থেকো’, ‘অন্তরজ্বালা’, ‘গহীন বালুচর’র মতো আলোচিত সিনেমা। এখন দেখার পালা যে, ‘টমবয়’ টয়া তথা ‘বেঙ্গলি বিউটি’ সবাইকে ছাড়িয়ে কতটা হলমুখী করতে পারে বাঙ্গালি দর্শককে। তাই অপেক্ষার পালা বিজয়ের দিন ১৬ ডিসেম্বরে!

Sharing is caring!

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *