ফোনের চার্জ ফুরাবে না, সঙ্গে রাখুন ‘সোলার পেপার’

স্মার্টফোনের চার্জ না থাকার অভিযোগ বহুদিনের, তাই অনেকেই সঙ্গে নিয়ে ঘোরেন চার্জার ব্যাংক বা চার্জার। তবে এই দুটোরই সীমাবদ্ধতা আছে, সেটা হলো বিদ্যুতের সংযোগ না থাকলেই এ দুটোই অকেজো। কেমন হয় যদি চার্জারের চার্জ দেওয়া হয় সূর্যালোক থেকে?

ম্যাশেবল-এর খবরে প্রকাশ, ‘সোলার পেপার’ নামের নতুন একটি ইউএসবি চার্জার এনেছে প্রযুক্তি সংস্থা ‘ইয়োক’। ‘সোলার পেপার’ নামকরণের মূল কারণ, এটি কাগজের মতো পাতলা। একটি বইয়ের ভেতরে ভাঁজ করে একে বহন করা সম্ভব।

এই চার্জার সঙ্গে থাকলে ফোন চার্জ দেওয়ার জন্য সকেট খোঁজার প্রয়োজন হবে না। কারণ, এটি শক্তি গ্রহণ করবে আলো থেকে। শুধু ফোন নয়, ইউএসবি চার্জার দিয়ে চার্জ দেওয়া যায় এমন সব যন্ত্রেই কাজ করবে ‘সোলার পেপার’।

সংস্থার মতে, বাজারে থাকা অন্যান্য সোলার চার্জারের তুলনায় ‘সোলার পেপার’ হালকা এবং অধিক কার্যক্ষমতাসম্পন্ন। একটি আইফোন ফুল চার্জ করতে সময় নেবে মাত্র দু’ঘণ্টা। যদিও এর ওপর কোনো ছায়া পড়লে চার্জ করা বন্ধ হয়ে যাবে। আবার সূর্যের আলোতে এলে অটম্যাটিকভাবে চার্জ শুরু হবে।

চার্জারটির সঙ্গে থাকা প্রতিটি প্যানেল ২.৫ ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সক্ষম। একটি আইফোন চার্জ করতে প্রয়োজন হয় পাঁচ ওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন চার্জার। তাই আইফোন চার্জ করার জন্য দুটি প্যানেল ব্যবহার করতে হবে। আবার ট্যাবলেট চার্জ করার জন্য প্রয়োজন ১০ ওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন চার্জার। সে ক্ষেত্রে প্রয়োজন হবে চারটি প্যানেল।

‘সোলার পেপারে’র প্রতিটা প্যানেলে ছিদ্র করা আছে যাতে ব্যাগের সঙ্গে খুব সহজে ঝুলিয়ে রাখা যায়। যারা নিয়মিত ভ্রমণ করে থাকেন, তাদের ফোন চার্জের সমস্যা অনেকটাই কমিয়ে আনতে পারে এই সোলার চার্জার।

তথ্য ও ছবি : এবিপি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *