আন্তর্জাতিক 

প্রতিদিন ১০০ রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা মিয়ানমারের!

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চলতি মাসের শেষ দিকে বৈঠকে বসবে। প্রতিদিন ১০০ জন ফিরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা সম্পর্কে মিয়ানমারের রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনমন্ত্রী উইন মিয়াত আইয়ি বলেন, ‘আমাদের তাদের শণাক্ত করতে হবে যারা সঠিক। তাদের নিজেদের বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হবে। যদি তাদের বাড়ি সেখানে না থাকে তাহলে আপাতত তাদের জন্য নির্মিত অস্থায়ী ক্যাম্পে রাখা হবে।’

উল্লেখ্য, ২৫ আগস্ট রাখাইনে সামরিক অভিযান শুরুর পর বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছে পাঁচ লাখ ৩৬ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা। মাঝখানে কয়েকদিন রোহিঙ্গাদের ঢল কিছু মাত্রায় কমে আসলেও চলতি সপ্তাহে তা আবার বেড়েছে। সোমবার বাংলাদেশে প্রায় এগারো হাজার রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে। জাতিংঘের মতে, ১৯৭০ সালের পর এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত সবচেয়ে মানুষের বাস্তুচ্যুতির ঘটনা এটি।
জাতিসংঘ মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর অভিযানকে জাতিগত নিধনযজ্ঞের প্রামাণ্য উদাহরণ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। মিয়ানমার সরকার এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। জাতিসংঘ রাখাইনে সামরিক অভিযানে সেনা সদস্যদের দ্বারা ধর্ষণ, নবজাতক ও শিশুসহ হত্যা, নির্মম ও গুমের ঘটনা লিপিবদ্ধ করেছে। রোহিঙ্গাদের ফিরে আসার পথ বন্ধ করতে বাংলাদেশ সীমান্তে স্থলমাইন পুঁতে রাখা হয়েছে।

Sharing is caring!

Comments

comments

Related posts

One Thought to “প্রতিদিন ১০০ রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা মিয়ানমারের!”

  1. Good day! This is my first visit to your blog! We are a team of volunteers and starting a new initiative in a community in the same niche. Your blog provided us useful information to work on. You have done a wonderful job!

Leave a Comment