,

দাউদ ইব্রাহিম-হাফিজ সাঈদ সমস্যা পেয়েছি উত্তরাধিকার সূত্রে

শান্তির লক্ষ্যে ভারত এক পা বাড়ালে পাকিস্তান দু’পা বাড়াবে। এমনটাই বলে আসছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। কিন্তু দুনিয়ার ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ জঙ্গি হাফিজ সাঈদকে নিয়ে কী করবেন? কিংবা দাউদ ইব্রাহিমকে নিয়ে? অপ্রীতিকর এই প্রশ্ন কায়দা করে এড়িয়ে গেলেন ইমরান খান। এই প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, দাউদ ইব্রাহিম বা হাফিজ সাঈদকে আশ্রয় দেওয়ার মতো ইস্যু আমরা উত্তরাধিকার সূত্রে পেয়েছি। এতে আমার কোনও ভূমিকা নেই।

মুম্বাই হামলার মূল চক্রী হাফিজ সাঈদের বিচার ও মুম্বাই দাঙ্গার হোতা দাউদ ইব্রাহিমকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে নয়াদিল্লি। সেই দাবিকে এতদিন বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এসেছে পাকিস্তান। এ নিয়ে ইমরান খান পাল্টা চাপ দেন ভারতকে।

তিনি বলেন, অতীত নিয়ে বাঁচা যায় না। আমাদের হাতেও একটা মোস্ট ওয়ান্টেড লিস্ট রয়েছে যা আমরাও দিতে পারি। তবে পাকিস্তানের মাটি থেকে অন্য কোন দেশে সন্ত্রাস চালানোর জন্য ব্যবহার করতে দিতে রাজি নয় সরকার।

ইমরান খান বলেন, হাফিজ সাঈদের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিষধাজ্ঞা রয়েছে। এখনও জামাত-উদ-দাওয়া প্রধানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এই ইস্যু আমরা উত্তরাধিকার সূত্রে পেয়েছি।

প্রসঙ্গত, করতারপুর করিডোরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের দিন তার ভাষণে ইমরান খান বলেন, পাক সরকার ও পাক সেনা ভারতের সঙ্গে একটা সভ্য সম্পর্ক গড়ে তুলতে চায়। কাশ্মীর ইস্যু একমাত্র কথা বলেই মিটিয়ে ফেলা সম্ভব।


     More News Of This Category