তেঁতুলের টক-মিষ্টি আচার

আচার নাম শুনলে সবার জিভেই পানি চলে আসে। অনেক রকমের আচার হয় যেমন: টক আচার, মিষ্টি আচার, টক ঝাল আচার, টক-মিষ্টি আচার ইত্যাদি। আর তেঁতুল কাচা হোক বা পাকা এর কদর সকলের কাছেই। তেঁতুলের আচারও সকলের পছন্দের তালিকায় রয়েছে।

তেঁতুলের টক-মিষ্টি আচার তৈরি করার প্রণালী জেনে নিন-

উপকরণ: তেঁতুল ১ কেজি, গুঁড়ো ২ কাপ পরিমাণ, সরিষার তেল ১ কাপ, শুঁকনো মরিচ প্রয়োজন মতো, গোটা ধনে ২ চা চামচ, গোটা জিরা ১ চা চামচ, লবণ ২ চা চামচ, ভিনেগার ১ চা চামচ।

প্রণালী: প্রথমে এক কেজি তেঁতুল নিয়ে এর মধ্যে পানি দিতে হবে এক কাপ। হাত দিয়ে তেঁতুল পানির সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে এক ঘণ্টা রাখতে হবে। একটি প্যানে এক কাপ পরিমাণ সরিষার তেল গরম করে পাঁচটি শুকনো মরিচ দিয়ে একটু ভেঁজে নিতে হবে। শুকনো মরিচের রঙ পরিবর্তন হলে দুই চা চামচ গোটা জিরা ও এক চা চামচ পাঁচ ফোঁড়ন দিয়ে আবার ভেঁজে নিতে হবে। চুলার আঁচ মিডিয়ামের থেকে কম রাখতে হবে। এবার এর মধ্যে তেঁতুল দিয়ে মসলার সঙ্গে মিশিয়ে দিতে হবে যাতে তেঁতুলের আঁশ বীচি থেকে আলাদা হয়ে যায়। তেঁতুল দেয়ার পর চুলার আঁচ মিডিয়ামে রাখতে হবে।

যখন তেঁতুলের আঁশ বীচি থেকে আলাদা হয়ে যাবে তখন এক কাপ পরিমাণ গুঁড় দিতে হবে। চাইলে এটা চিনি দিয়েও তৈরি করতে পারেন। সেক্ষেত্রে তেঁতুলের আচারের আসল স্বাদ আসবে না। কিছু সময় পর আবার এক কাপ গুঁড় দিতে হবে। এবার স্বাদ মতো লবণ দিতে হবে কিংবা তেঁতুলের টক অনুযায়ী লবণ দিতে হবে। অনবরত নেড়ে এই আচারটা তৈরি করতে হবে নাহলে নিচে লাগে যাবে। টালা শুকনো মরিচ দিতে হবে এক টেবিল চামচ। যখন আচার আঁঠালো হয়ে পাত্র থেকে উঠে আসবে তখন এক টেবিল চামচ ভিনেগার দিতে হবে। এভাবে কিছু সময় নাড়া চাড়া করে জ্বাল দিলেই মজাদার তেঁতুলের টক-মিষ্টি আচার তৈরি হয়ে যাবে। এটি পাঁচ থেকে ছয় মাস পর্যন্ত রাখা যায়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments