তনুশ্রীর যৌন হয়রানির জেরে ‘হাউসফুল ৪’ ছাড়লেন অক্ষয়

বলিউডে বক্স অফিস কাঁপানো ছবি ‘হাউসফুল’। ধারাবাহিক সাফল্যের পর কয়েক মাস আগে লন্ডনে ‘হাউসফুল ৪’-এর শুরু হয়। আবারও নতুন সিকুয়্যাল দিয়ে বলিউড মাতানোর পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছিল এই সিনেমার টিম। ‘নাদিয়াদওয়ালা গ্র্যান্ডসন এন্টারটেনমেন্ট’-এর প্রযোজনায় ও সাজিদ খানের পরিচালনায় এই ছবির মুখ্য চরিত্রগুলোতে অভিনয় করছিলেন অক্ষয় কুমার, ববি দেওল, রীতেশ দেশমুখ। ছবিতে নায়িকা কৃতি শ্যানন ও পূজা হেগড়ে।

সম্প্রতি অক্ষয় জানালেন এই ছবিতে আর অভিনয় করবেন না তিনি। ২০০৮ সালে হাউসফুলের শুটিংয়ে অভিনেত্রী তনুশ্রী শুটিং সেটে অভিনেতা নানা পাটেকরে কাছে যৌন হয়রানির স্বীকার হন বলে অভিযোগ আনেন। যদিও এখনো প্রামাণিত হয়নি বিষয়টি। নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে এক দশক আগের অভিযোগকে ঘিরে নতুন করে সমালোচনার মুখে পেড়ে হাউসফুলের গোটা টিম।

সেই ঘটনার জেরেই অক্ষয় শুক্রবার টুইট করে বলেন, ‘হাউসফুল চার-এর প্রযোজকদের বলেছি সম্পূর্ণ তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখতে। কোনও দোষীর সঙ্গে আমি কাজ করবো না।’ ইতালিতে পারিবারিক ছুটি কাটিয়ে ফিরে অক্ষয় শুক্রবার টুইট করে জানান, ‘আমি সবে দেশে ফিরেছি। যে সব খবর পাচ্ছি সেগুলো খুবই দুশ্চিন্তাকর। হাউসফুল চার-এর প্রযোজকদের বলেছি সম্পূর্ণ তদন্ত না হওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখতে। কোনও এ ধরণের ঘটনায় দোষীর সঙ্গে আমি কাজ করবো না। যে মহিলাকা এ ধরনের অভিযোগ করেছেন, তাদের সর্ম্পূণ নিরপেক্ষ বিচার ও সম্মান দিতে হবে।’

অক্ষয়ের পরেই সাজিদ টুইট করেন, ‘তিনি সিনেমাটির পরিচালকের ভূমিকা থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন, যতক্ষণ না আসল সত্য ঘটনা প্রমাণিত হয়।’ অক্ষয়ের স্ত্রী টুইঙ্কেল খান্নাও টুইট করেন, ‘এই সব নারীরা যে ধরনের অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন সেগুলি ভয়ানক। হাউসফুলের সঙ্গে যুক্ত প্রত্যেকের কড়া পদক্ষেপ করা উচিত। এটা চলতে পারে না।’

সাজিদের বোন ফারহা খান নানা পাটেকর তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে প্রেস কনফারেন্স ডাকেন। পরে অবশ্য তিনি জানান আইনজীবীর কথামতো তিনি মিডিয়ার সামনে মুখ বন্ধ রাখবেন। তবে তার আগেই টাইমস নাউকে বলেন, একটা ভিড়ে ঠাসা সেটে তার পক্ষে তনুশ্রীর শ্লীলতাহানি কর অসম্ভব। তিনি তনুশ্রীকে লিগাল নোটিশও পাঠান। তনুশ্রীও নানার বিরুদ্ধে ওসিওয়াড়া থানায় অভিযোগ করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments