জেনে রাখো : জ্যামিতির জনক কে?

প্রাচীন অঙ্কশাস্ত্রবিদ ইউক্লিড যিশুখ্রিস্টের জন্মের বহু আগে গ্রিসে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর জন্ম ও জীবন সম্বন্ধে প্রামাণ্য তথ্য পাওয়া যায় না। অনুমান করা হয়যিশুখ্রিস্টের জন্মের প্রায় ৩০০ বছর আগে তিনি জন্মগ্রহণ করেছেন। ইউক্লিডের জ্যামিতিক সূত্রসমূহ সে সময় শুধু নয়আজও স্কুল-কলেজে পড়ানো হয়ে থাকেকারণ সকল জ্যামিতিক ধারণাই তাঁর সূত্রের ওপর ভিত্তি করে তৈরি। ইউক্লিড মহাজ্ঞানী প্লেটোর বিখ্যাত স্কুলে পড়াশুনা করেছেন বলে প্রচলিত আছে। রাজনৈতিক কারণে প্লেটোর স্কুলটি স্থানান্তরিত করা হয়েছিল মিসরের প্রাচীন সমুদ্রবন্দর আলেকজান্দ্রিয়ায়। এই স্কুলে ছিল এক বিশাল ও সমৃদ্ধ গ্রন্থাগার। এই গ্রন্থাগারে বসে ইউক্লিড পড়াশুনা ও গবেষণা করেন।

ইউক্লিডের অঙ্কশাস্ত্র প্রথমে আরবি ভাষায় রচিত হয়েছিল। পরে ল্যাটিন ভাষায় অনূদিত হয়েছিল। ইউক্লিডকে জ্যামিতি শাস্ত্রের জনক বলা হয়। তাঁর ওপর গবেষণা করে জার্মান অঙ্কশাস্ত্রবিদ রেইম্যান আবিষ্কার করেন ইউক্লিডিয়ান জিওম্যাট্রি। মহাজ্ঞানী আইনস্টাইনও ইউক্লিডের জ্যামিতিক সূত্রের সাহায্যে আবিষ্কার করেন আপেক্ষিক তত্ত্ব। আলেকজান্দ্রিয়ার স¤্রাট টলেমিও ছিলেন ইউক্লিডের গুণমুগ্ধ ভক্ত। কিন্তু স¤্রাটের কাছে ইউক্লিডের জ্যামিতিক সূত্রগুলো ভীষণ জটিল বলে মনে হতো। তাই তিনি ইউক্লিডকে জ্যামিতি শেখার বা বোঝার শর্টকার্ট পথ জানতে চেয়েছিলেন। ইউক্লিড সবিনয়ে স¤্রাটকে বলেছিলেনÑ ‘মহারাজের জন্যও জ্যামিতি শেখার কোনো সহজ পথ তৈরি হয়নি। জ্ঞানার্জনের জন্য কোনো শর্টকার্ট পথ নেই।’ ইউক্লিডের এই জবাবটি পরবর্তী সময়ে প্রবচনে পরিণত হয়েছে। যথার্থই জ্ঞানার্জনের জন্য কোনো শর্টকার্ট পথ নেই। জ্ঞানার্জনের জন্য চাই অসীম ধৈর্যঅনুশীলনঅধ্যবসায়মনোযোগ। অঙ্কশাস্ত্রকে অনেকের কাছে নীরস বিষয় মনে হয়। কিন্তু বিষয়ের মধ্যে একবার ডুবে যেতে পারলে কোনো বিষয়ই আর নীরস থাকে না।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *