,

চুল পড়া বন্ধ করতে সপ্তাহে তিনদিন রাতে করুন ছোট্ট এই রূপচর্চা

চুলের ঘনত্বের উপর নির্ভর করে দিনে ৫০ থেকে ১০০ টি চুল পড়াকে স্বাভাবিক হিসাবেই ধরা হয়। কিন্তু এর বেশী পড়লেই বুঝবেন যে বিপদ আসন্ন। চুল পড়ছে খুব আজকাল? চিরুনি আর বিছানায় ঝরে পড়া চুলের ছড়াছড়ি? না, পার্লারের দামী ট্রিটমেন্ট নয়। নিজের ঘরে বসে ছোট্ট একটি কাজ করলেই আপনি বন্ধ করতে পারবেন চুল পড়া। সাথে চুল হয়ে উঠবে ঘন, কেননা নতুন চুল গজাবে। যাদের কুচকুচে কালো চুলের শখ, তাদের মনের আশাটাও পূরণ হবে।

কিন্তু করবেনটা কী? আসুন, জেনে নেই।

চুল পড়া রোধ করার জন্য আপনাকে তৈরি করে নিতে হবে একটি বিশেষ তেল। এই তেল তৈরির জন্য এক কাপ খাঁটি নারকেল তেল নিন। আর সাথে নিন ৩ থেকে ৪ টি রক্তলাল জবাফুল। এবার এই জবা ফুল তেলের মাঝে দিয়ে তেলটিকে ভালো করে গরম করে নিন। তেল আগুনের মত গরম হয়ে গেলে এই তেল ঠাণ্ডা হতে দিন। একদম ঠাণ্ডা করে একটি কাঁচের শিশিতে ভোরে রাখুন।

সপ্তাহে ৩ দিন রাতের বেলা এই তেল ব্যবহার করবেন। তবে খেয়াল রাখবেন, তেল ব্যবহার করার আগে চুল এবং বিশেষ করে মাথার ত্বক যেন পরিষ্কার থাকে। আঙুল দিয়ে ম্যাসাজ করে করে তেল লাগাবেন চুলের গোঁড়ায়। খুব যত্ন করে, ধীরে ধীরে। এই ম্যাসাজে চুলের গোঁড়ায় রক্ত সঞ্চালন বাড়বে। এবং জবা ফুলের পুষ্টি টুকুন চুল ভালোভাবে গ্রহণ করতে পারবে। তেল লাগানো হলে চুল ভালো করে আঁচড়ে নেবেন। এবং ঘুমিয়ে যাবেন। মাথায় যেন কোনরকম তাপ না লাগে সেটা লক্ষ্য করবেন। সকালে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চুল শ্যাম্পু করে শুকিয়ে নেবেন।

জবা ফুলের তেল নিয়মিত ব্যবহার করলে চুল পড়া বন্ধ হবে নিশ্চিত। এক মাস ব্যবহারেই ফল পাবেন। তবে এই সময়ের মাঝে চুলে কোন রকম আয়রন বা কেমিকেল ব্যবহার করবেন না।

এছাড়াও মনে রাখুন-
চুলের যত্নে প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ পান করুন।
চুল সবসময় পরিষ্কার ও শুকনো রাখবেন।
চুলের গোঁড়ায় ঘাম জমতে দেবেন না। ভেজা চুলে বেশিক্ষণ থাকবেন না বা ঘুমাবেন না।
তেল কখনো এক রাতের বেশী মাথায় রাখবেন না।


     More News Of This Category