চুমু খাওয়ার সময়ে এই ৫টি মারাত্মক ভুল করবেন না

চুম্বন মানুষের স্বাভাবিক প্রবৃত্তি কিন্তু চুম্বনেরও কিছু নিয়মকানুন রয়েছে। কিস ডে-তে মনের মানুষকে চুমু খাওয়ার সময়ে কয়েকটি জিনিস মাথায় রাখা খুবই জরুরি।

চুম্বনের ইচ্ছাটা মনের ভিতর থেকে যখন ক্রমশ ঠোঁটের ডগায় উঠে আসে, তখন অনেক কিছুই মাথায় থাকে না। সমাজ-পারিপার্শ্বিক-অতীত-ভবিষ্যৎ সব গুলিয়ে যায়। একটাই অনুভব গ্রাস করে ফেলে চেতন মনকে। এই প্যাশন ছাড়া চুমু অনেকটা তেল ছাড়া তেলেভাজার মতো কিন্তু আবার এই সর্বগ্রাসী প্যাশনই অনেক সময় চুম্বনকে চিরস্মরণীয় অভিজ্ঞতা হয়ে উঠতে বাধা দেয়। অতিরিক্ত প্যাশনের তাড়নায় অনেক সময় এমন কিছু ভুল হয়ে যায় যে চুমুর স্বাদটাই বিস্বাদ হয়ে উঠতে পারে। মনের মানুষের সঙ্গে কিস ডে সেলিব্রেট করার আগে জেনে নিন চুমু খাওয়ার সময় কী কী মারাত্মক ভুল হয়ে যেতে পারে—

১. চুমু খাওয়ার সময়ে অনেকেই সঙ্গীর মুখটি হাতের মধ্যে ধরে রাখতে পছন্দ করেন। খুব প্যাশনেট চুমুর ক্ষেত্রে ক্রমশ বাড়তে থাকে হাতের চাপ। চুমুর শুরুতে আপনার সঙ্গী এটা উপভোগ করলেও, হাতের চাপ যদি বেড়ে যায় তবে বলা বাহুল্য তার চোয়ালে ব্যথা লাগবে এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই সে নিজেকে ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করবে। তাই কয়েক সেকেন্ড পরে আলগা করে দিন হাতের
রাশ।

২. দমবন্ধ করা চুমু ভীষণ রোম্যান্টিক কিন্তু খুব বেশিক্ষণ দমবন্ধ হয়ে থাকলে রোম্যান্স উধাও হতে বাধ্য। তাই এই ধরনের চুমু খেতে হয় থেমে থেমে, সেকেন্ডখানেক বা দুয়েক বিরতি দিয়ে। তবেই এর সম্পূর্ণ আস্বাদ পাওয়া যায়।

৩. ডিপ কিসে দাঁতের খুব বড় ভূমিকা রয়েছে। দাঁতকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে জানতে হবে। চুমু খাওয়ার সময় দাঁত দিয়ে ঠোঁটের উপর হাল্কা চাপ সঙ্গীর প্যাশনকে বাড়িয়ে দেয় কিন্তু কামড় বসানোটা সব সময় সবাই পছন্দ নাও করতে পারে। সঙ্গীর পছন্দ না বুঝে এমন চুমু খেতে যাওয়াটা খুবই বোকামি হবে।

৪. চুমু খাওয়ার সময় চোখ খুলে রাখাটা চুমুর শিষ্টাচার-বহির্ভূত কাজ। আসলে চুমুতে আপ্লুত হলে আপনা-আপনিই চোখ বুজে আসে কিন্তু চুমু খাওয়ার সময় চোখ খোলা থাকলে সঙ্গীর মনে হতে পারে যে আপনার আবেগে কিছু ঘাটতি রয়েছে এবং চুমুটা যতটা না আবেগতাড়িত, তার থেকে অনেক বেশি মেকানিকাল।

৫. সঙ্গীর উচ্চতা যদি আপনার থেকে কম হয় তবে দাঁড়িয়ে দীর্ঘ সময় চুমু খেলে তাঁর ঘাড়ের এবং কাঁধের মাসল-এ স্প্রেইন হওয়া স্বাভাবিক। যত গভীর প্রেমই হোক না কেন, এইভাবে চুমু কেউ উপভোগ করেন না।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *