,

গ্রেট ওয়াল বাঁচাতে ড্রোন-গাধা

চীনের গ্রেট ওয়াল বা মহাপ্রাচীর রক্ষায় এবার ব্যবহৃত হচ্ছে ড্রোন ও গাধা। বেশ প্রাচীন এই স্থাপনাটি বর্তমানে বিভিন্ন স্থানে ভেঙে গেছে, দেখা দিয়েছে ফাটল। সব মিলিয়ে এর সংস্কার কাজ জরুরি হয়ে পড়েছে। এরইমধ্যে তা শুরু হয়েছে।
মহাপ্রাচীরের এমন কিছু জায়গা আছে যেখানে মানুষের পক্ষে যাওয়া সম্ভব। এ জায়গাগুলো বলতে গেলে মানুষের আয়ত্তের বাইরে। এ কারণে সেখানকার সর্বশেষ অবস্থা পর্যবেক্ষণ সম্ভব হয়নি, ফলে এতোদিন হয়নি কোনও সংস্কারও।
তবে এবার আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে আগের সীমাবদ্ধতা দূর করা হয়েছে। এখন প্রাচীরের যেকোনও অংশই পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব হচ্ছে।

এ কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে বিশেষভাবে তৈরি ড্রোন। এটা মহাপ্রাচীরের দেয়াল গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করে এবং মানুষের কাছে সেসব তথ্য সরবরাহ করে। ফলে ওইসব ক্ষতিগ্রস্ত অংশ পরিমাপ করা ও সংস্কার করা সম্ভব।
এ সম্পর্কে মহাপ্রাচীর স্থপতি জাও পেং বিবিসিকে জানান, মহাপ্রাচীরের কিছু জায়গা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। ড্রোন ব্যবহার করে সেসব জায়গা সম্পর্কে ধারণা পাচ্ছি।

ড্রোন মহাপ্রাচীরের ছবি তোলার মাধ্যমে যথাযথ তথ্য সরবরাহ করছে। এ কারণে সংস্কার কাজ আরও সহজ হয়ে উঠেছে। সংস্কারের জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মহাপ্রাচীরের নির্দিষ্ট জায়গায় নিয়ে যেতে ব্যবহার করা হচ্ছে গাধা।


     More News Of This Category