এবার বাংলাদেশে চালু হলো সাশ্রয়ী ‘টুইটার লাইট’

এবার বাংলাদেশে চালু হলো সাশ্রয়ী ‘টুইটার লাইট’

বাংলাদেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য ছাড়া হল জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম টুইটার-এর খুদে সংস্করণ ‘টুইটার লাইট’। মূল টুইটার অ্যাপের চেয়ে এটি আপনার স্মার্টফোনে কম জায়গা ব্যবহার করবে। টুইটার-এর সবগুলো অপশন না থাকায় ‘টুইটার লাইট’ ব্যবহার করে বিভিন্নভাবে লাভবান হতে পারেন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা।

বাংলাদেশসহ ২৪টি দেশে ব্যবহার করা যাবে ‘টুইটার লাইট’। অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাচ্ছে বলে শুক্রবার একটি ঘোষণা দেয় সামাজিক মাধ্যমটি।

‘টুইটার লাইট’ ফোনে মাত্র তিন মেগাবাইট জায়গা ব্যবহার করে। একই সঙ্গে ক্যাশিং প্রযুক্তি ব্যবহারের কারণে দুর্বল নেটওয়ার্কে থেকেও ব্যবহার করা যাবে অ্যাপটি।

‘টুইটার লাইট’ ব্যবহার করার সময় আপনি চাইলে কোন কোন টুইট-এর ভিডিও ও ছবি দেখতে চান আপনার স্ট্রিমে তা পছন্দ করতে পারবেন। এর ফলে সব টুইটের ভিডিও ও ছবি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেখানো হবে না, বেঁচে যাবে আপনার ইন্টারনেট ডাটা।

এ বছরের এপ্রিল মাসে প্রথম টুইটার লাইট ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিল টুইটার। ফিলিপাইনের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য গত দুইমাস পরীক্ষামূলকভাবে টুইটার লাইট ছাড়া হয়। সেখানে প্রাথমিক বিভিন্ন পরীক্ষার পর আরও ২৪ টি দেশে চালু করা হল অ্যাপটি।

জানা গেছে, ২০১৭ সালের শেষ দিকে টুইটার ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৩৩ কোটিতে গিয়ে পৌঁছয়। এর আগের দুই বছর টুইটার ব্যবহারকারীর সংখ্যা লক্ষণীয়ভাবে স্থির ছিল।

উন্নয়নশীল দেশগুলোতে স্মার্টফোন ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ায় সেখানে নতুন গ্রাহক সংগ্রহের চেষ্টা করছে টুইটার। এই লক্ষ্যেই এশিয়া, আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের ২৪ দেশে চালু করা হল ‘টুইটার লাইট’।

Sharing is caring!

Comments

comments

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *