এই শীতে চট-জলদি রূপচর্চায় ফেসিয়াল

শীতে নাজেহাল, এর মধ্যে আবার রূপচর্চা! এমন ভাবলে পুরো শীতে আমাদের ত্বক আদ্রতা হারিয়ে হয়ে যাবে শুষ্ক, রুক্ষ। সেই সঙ্গে উজ্জ্বলতাও হারাবে। তাই এসময়ে প্রয়োজন একটু বাড়তি যত্ন।

ঘরোয়া জিনিস ব্যবহার করে কীভাবে ফেসিয়াল করবেন জেনে নিন ধাপগুলো,

ক্লিনজার 
প্রথমে গরম ভাপ নিয়ে নিন। এটি আপনার মুখের লোমকুপগুলো খুলে দিতে সাহায্য করবে। ভাপ নেয়া হয়ে গেলে ক্লিনজার দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন ভালো করে। দুধে তুলা ভিজিয়েও ত্বক পরিষ্কার করে নিতে পারেন।

ক্রিম ম্যাসাজ
ফেসিয়াল ক্রিম দিয়ে ১০ মিনিট ত্বকে হালকা হাতে ম্যাসাজ করে নিন।

এবার স্ক্র্যাব দিয়ে মুখ আলতো ভাবে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ঘষুন। তারপর গরম পানিতে ভেজানো তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে ফেলুন। উজ্জ্বল ত্বকের জন্য চালের গুঁড়া, সুজি অথবা চিনি হতে পারে সবচেয়ে ভালো স্ক্র্যাব।

টোনিং
সমপরিমাণ ভিনেগার ও গোলাপ জল মিশিয়ে তৈরি করতে পারেন টোনার। যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে খুবই উপযোগী। তুলা দিয়ে টোনার মুখে লাগান কিন্তু ভুলেও ঘষবেন না। চোখের কাছে লাগাবেন না।

এই পর্যায়ে ফেসিয়াল যেকোনো একটি মাস্ক প্রস্তুত করুন। 

একটা শসা কুড়িয়ে, সেটা থেকে রসবের করে এক চামচ চিনি ভালো করে মিশিয়ে ত্বকে মেখে দশ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন। শসার রস ত্বককে হাইড্রেট করে, ফলে ত্বক অনেক মসৃণ ও উজ্জ্বল হয়।

দু’চামচ মসুর ডাল সারারাত ভিজিয়ে রেখে পরদিন সকালে মসুর ডাল বেটে তার মধ্যে অল্প দুধ ও আমন্ড তেল মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটা মুখে মেখে দশ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার পানি দিয়ে ঘষে ঘষে ধুয়ে নিন।

শসার রস, এক কাপ ওটমিল ও এক টেবিল চামচ দই একসঙ্গে মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার এই মিশ্রণটা পুরো মুখে মেখে তিরিশ মিনিট রেখে হালকা গরম পানিতে ধুয়ে নিন।
এবার ত্বকে ভালো কোনো কোম্পানির ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *