ইন্ডিয়ান আইডলের ভিতরের গোপন খবর ফাঁস করলেন প্রতিযোগী

ইন্ডিয়ান আইডল ভারতের জনপ্রিয় সংগীত প্রতিযোগিতা। এই রিয়েলিটি অনুষ্ঠানে প্রতিযোগীর সঙ্গে শারীরিক নিগ্রহ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বিষয়গুলো নিয়ে বেশ কিছু ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন ২০১২ সালের ইন্ডিয়ান আইডলের প্রতিযোগী নিশান্ত কৌশিক। তার এই অভিযোগগুলো সত্য বলে দাবি করেছেন অনুষ্ঠানটির জনপ্রিয় উপস্থাপিকা মিনি মাথুর।

আইবি টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, কিছুদিন আগে নিশান্ত তার টুইটার পোস্টে লিখেন, ২০১২ সালে অডিশন দিতে গিয়ে আমি খুবই কষ্ট পেয়েছিলাম। সেদিন দুপুর ১টায় অডিশন দিতে গিয়েছিলাম।

অডিশনে আমরা সবাই সকাল ৭টা থেকে ২ কিলোমিটার লম্বা লাইনে দাঁড়িয়েছিলাম। সেখানে এমন প্রতোযোগীও ছিলেন, যারা ভোর ৫টা, কেউ রাত থেকে এসেও লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন। সেখানে এতটাই অব্যবস্থা ছিল যে, খাবার ছিল না, পানি ছিল না এমনকি টয়লেটও ছিল না। ইন্ডিয়ান আইডলের পরিচালনা পরিষদের অব্যবস্থাপনার কারণে নোংরা অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছিল আমকে।

আমারা অনেকেই পানির পিপাসা নিয়েই দাঁড়িয়েছিলাম। কারণ উপায় নেই। অডিশনের সময় কোনো প্রতোযোগী গান গাইতে না পারলে তাকে নিয়ে খুব হাসি-তামাশা করা হয়। আবার কয়েকজন প্রতিযোগীকে উপস্থিত নিজে গান বানিয়ে গাইতে বলা হয়।

একবার এক প্রতিযোগী এই কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানালে তাকে থাপ্পর মারেন এক বিচারক। অবশেষে ওই প্রতিযোগীকে নোংরাভাবে বের হয়ে যেতে বলা হয়। যারা গান পারেন না তাদের নিয়ে কৌতুক করার জন্য বিচারকদের সামনে পাঠানো হয়। যাতে করে বিচারকরা হাসি-ঠাট্টা করতে পারেন।আমার মনে হয়, সংগীতের প্রতিভা নষ্ট করে দেওয়ার জন্য এই অডিশনটি যথেষ্ট। এখানে প্রতিযোগীদের অনেক ধরনের হুমকি ও অত্যাচারের মুখোমুখি হতে হয়।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *