আঁচিল সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

আঁচিল হচ্ছে ছোট রুক্ষ প্রবৃদ্ধি যা চামড়ার উপর অনেকটা ফুলকপির মতো বৃদ্ধি অথবা কঠিন ফোস্কার মতো দেখায়। শরীরের যে কোনো স্থানে বিশেষ করে হাতে, পায়ে, গলায়, ঘাড়ে, মুখে বেশি দেখা যায়। এটি একটি ভাইরাসজনিত রোগ। সাধারণত হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাস দ্বারা আঁচিল হয়ে থাকে।

চিকিত্সা করা না হলে আঁচিল সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে। আবার অনেক সময় চিকিৎসা না নিলেও আঁচিল ভালো হয়ে যায়। তবে একবার ভালো হয়ে যাওয়ার পরও আবার হতে পারে এবং কয়েক বছর পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।

আঁচিল আছে এমন মানুষের সংস্পর্শে আসলেও অপর জনের আঁচিল হতে পারে। আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যবহৃত জিনিস, নখের আঁচড়ে এই ভাইরাস ছড়ায়। এ ছাড়াও ত্বকের পলিপ, ক্যান্সার, স্কিন ডিজ অর্ডার, ব্রণ, কন্ট্যাক্ট ডার্মাটাইটিস, সেবরিক কেরাটোসিস এবং মোলাস্কাম, কন্ট্যাজিওসামের কারণেও আঁচিল হতে পারে।

দুই এক মাসের মধ্যে আঁচি ভালো না হলে চিকিত্সকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। এর মধ্যে স্যালিসিলিক এসিড সম্পৃক্ত চিকিত্সা পদ্ধতি অধিক কার্যকর। তবে অবশ্যই তা চিকিত্সকের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করতে হবে। এ ছাড়াও ক্যারাটোলাইসিস, ইলেকট্রোডেসিকেশান, ক্রায়োসার্জারি, লেজার চিকিৎসাও বর্তমানে অধিক জনপ্রিয়।

– ডা. সঞ্চিতা বর্মন

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *