অগ্রণী ব্যাংক থেকে কোটি টাকা ঋণ নিতে পারবে জবি শিক্ষকরা

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিভিন্ন খাতে ঋণ প্রদানের জন্য অগ্রণী ব্যাংকের সাথে এক দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে উপাচার্যের সভাকক্ষে এই চুক্তি হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে স্বাক্ষর করেন ট্রেজারার অধ্যাপক মোঃ সেলিম ভূঁইয়া এবং অগ্রণী ব্যাংক লিঃ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ব্যবস্থাপক বিধান চন্দ্র। চুক্তি পত্রে শর্তাবলীর মাঝে উল্লেখ করা হয় যে, শিক্ষক ও কর্মকতারা সর্বোচ্চ ১ কোটি এবং কর্মচারী ও সহায়ক কর্মচারীরা যথাক্রমে সর্বোচ্চ ৫০ লক্ষ ও ৩০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন।

তবে ঋণ আবেদনকারীর চাকরিকাল সর্বনিম্ন ৫ বছর স্থায়ী ভিত্তিক হতে হবে। ২০ বছর মেয়াদী ঋনের কিস্তি ১০ শতাংশ হার সুদে প্রতি ১ লক্ষ টাকায় ১০৭৯ টাকা, যা সর্বোচ্চ ২৪০ কিস্তিতে পরিশোধ করতে পারবে। তবে জবির এই চুক্তিতে ঋন গ্রহীতাদেও সুদের হার অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে কম।

অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন অনুষদের ডিন, রেজিস্ট্রার, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. প্রিয়ব্রত পাল, সাধারণ সম্পাদক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী, অগ্রণী ব্যাংক লিঃ-এর ডিজিএম শামীম আহমেদসহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *